বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:০৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কেশবপুরে নানা কর্মসূচির মাধ্যমে জাতীয় যুব দিবস পালিত সোনারগাঁয়ে ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে ঐক্যবদ্ধ আওমীলীগ ৮ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল।। মোহনপুর ইউপি নির্বাচনে মহিলা মেম্বার প্রার্থী জেসমিন বেগমের মনোনয়নপত্র জমা মোহনপুর ইউপি নির্বাচনে মেম্বার পদে বিল্লাল তপদারের মনোনয়নপত্র দাখিল নৌকার পক্ষে হাফিজ তপদার এর নেতৃত্বে বিশাল মিছিল সুফলাকাটি ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে ইচ্ছুক গোলাম কিবরিয়া মনি সনমান্দী ইউপি’র ১,২,৩ নং ওয়ার্ডের সদস্য পদে সকলের নিকট দোয়া কামনা করেন:- সানোয়ারা আক্তার  মোহনপুর ইউপি নির্বাচনে মহিলা মেম্বার প্রার্থী উম্মূল আয়মার মনোনয়ন জমা হাফিজ তপদার এর নেতৃত্বে শামসুল হক চৌধুরী বাবুল কে ফুলের মালা ব্রেষ্ট ক্যান্সার সারভাইর্বাস অব সিলেট স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি সম্পর্কে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
নোটিশ :

২ নম্বর সাগরদাঁড়ী ইউনিয়নবাসির সেবক হতে ইচ্ছুক মোঃ শাহাদৎ হোসেন

 

 

স্বাধীন মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ,কেশবপুর(যশোর)থেকে:- আসন্ন ইউপি নির্বাচনে ২ নম্বর সাগরদাঁড়ী ইউনিয়নবাসির সেবক হতে ইচ্ছুক অত্র ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি মোঃ শাহাদৎ হোসেন। প্রচার বিমুখ এই মানুষটি ইতিমধ্যে পৌছে গেছেন ইউনিয়নের প্রত্যেকটা ওয়ার্ডে, গ্রামে, পাড়ায়, মহল্লায়। স্বপ্ন দেখছেন ঐতিহ্যবাহী ইউনিয়নটিকে একটি আধুনিক, দুর্নীতিমুক্ত,ডিজিটাল ইউনিয়ন হিসাবে গড়ে তোলার। ইউনিয়ন আ’লীগের অধিকাংশ নেতার পছন্দের এই মানুষটি দলীয় প্রতিক নৌকার প্রত্যাশা করছেন।

 

শাহাদৎ হোসেন সম্পর্কে কিছু কথা, বাঁশবাড়িয়া গ্রামের মৃত মোফাজ্জেল হোসেন সরদারের সন্তান মোঃ শাহাদৎ হোসেনর রয়েছে বর্ণাঢ্য এক রাজনৈতিক জীবন। তিনি ১৯৭৬-১৯৯১ সাল পর্যন্ত ২নম্বর সাগরদাঁড়ী ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসাবে গুরু দায়িত্ব পালন করেছেন। সেই সময় ১৯৮২-১৯৯১ ও ১৯৯৬-২০০৩ সাল পর্যন্ত ছিলেন কেশবপুর উপজেলা আ’লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য। দলের কঠিন সময়ে উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ১ হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন ২০০৩-২০১৩ সাল পর্যন্ত। তারপর তিনি ২০১৩ সালে সহ-সভাপতি মনোনীত হয়ে আজ পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। তিনি ১৯৯৭-২০০৩ সাল পর্যন্ত ২নম্বর সাগরদাঁড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন এবং সততা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। সেই সময়ে তিনি তার কাজের জন্য অধিক জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। তিনি ২০০১ সালে যখন চার দলীয় দানব জোট সরকার রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসে তখন জননেত্রী শেখ হাসিনার ডাকে সাড়া দিয়ে অত্র ইউনিয়নের ছাত্রলীগ, যুবলীগ, কৃষকলীগ, মহিলা আ’লীগ, আ’লীগের নেতা কর্মী ও ভোটার সমর্থকদের সাথে নিয়ে দীর্ঘ দিন (২০০৭ সাল পর্যন্ত) নিজামী হঠাও, ইয়াজ উদ্দীন হঠাও আন্দোলনে সক্রিয় ভাবে অবস্থান করেন এবং দলীয় সকল আন্দোলন,সংগ্রাম সফল করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। পরবর্তীতে তিনি ২০১১-২০১৬ সালে পুনরায় বিপুল ভোটের ব্যবধানে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

 

এছাড়া তিনি একাধিক সামাজিক, সংস্কৃতিক ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত রয়েছেন।

 

নির্বাচনে আংশগ্রহণ, দলীয় প্রতিক লাভ, বিজয়, ইউনিয়নকে ঘিরে আগামি দিনে স্বপ্ন, কর্ম পরিকল্পনা প্রভৃতি বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, দল আমাকে মনোনয়ন দিলে সাগরদাঁড়ী ইউনিয়নকে একটি আধুনিক, মডেল, মাদক, সন্ত্রাস, দুর্নীতিমুক্ত ডিজিটাল ইউনিয়ন হিসাবে গড়ে তুলব। এই ইউনিয়নের ঐতিহ্য ধরে রাখাসহ জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলার জন্য কাজ করে যাবো। কোনো দালাল, বাটপার দলের নাম ভাঙ্গিয়ে চাঁদাবাজি করার সুযোগ পাবে না।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১